অশোক – লক্ষ্মীকান্ত মণ্ড ল  

অভ্যাসের কাছে চাঁদ থাকলে দীর্ঘশ্বাস বাড়ে

মেঘের গায়ে লেপটে থাকা ধূলোময়লার দখলে

অসহ্য গুমোট, আকাশের গায়ের ইতিহাস থেকে

পোড় খাওয়া বট গাছটি ডানার ঝটপটানি  সহ্য করে,

ভেতরে ভেতরে পথ ক্ষয়ে যায় –

সেই খাদের ধারে দাঁড়িয়ে মেরুদণ্ড সোজা করার

কথা বলে অতীত গভীরের নক্ষত্র গুলি, ঝোপঝাড়

শেকড় বাকড়ের সুগন্ধি সঙ্গমে তেতো নোনতা পাতায়

রাতের স্নায়ু,  ঋতুবন্ধ্যা নারীটি কপাল আড়াল করে

হাতের চেটোয়; তার চার পাশে দুচোখের ক্লান্তি-

 

কৃষ্ণপক্ষের মাঝে নিঃস্ব হয়ে যায় অশোক দুরত্ব

 

 

 

.

মিলব আমরা               –  রণেশ রায়

তোমায় খুঁজে ফিরি পাইনা কোথাও

কোথায় যে হারিয়ে গেলে জানা নেই আমার,

কে যেন বলে যায় কেউ কি হারায়

হারায় না কেউ এই বিশ্ব মাঝে,

অবস্থান তার জানা নেই তোমার

সে আছে কোথাও না কোথাও

অন্তরীক্ষে কোন এক অজানা অচেনা অবস্থানে,

সঠিক পথে খোঁজ, খুঁজে পাবে তাকে।

যদি তাও না পাও জেনো সে গেছে মিলিয়ে

সময়ের ডাকে সে মিলিয়েছে কোন সে অন্তে,

দেখা হবে না আর তোমার সাথে

বৃথা খোঁজ তারে।

আমি জানি সে গেলেও যায় নি

সে আসবে ফিরে

আমার স্নায়ুর জগৎ হয়ে এ হৃদয় দুয়ারে,

খোলা আছে সে দুয়ার আমার

আসবে জানি মিলব আমরা আমাদের মননে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *