দহন – সুদীপ ঘোষাল

পুড়ে যাওয়ার আগে পুড়েছি নিঃশব্দ নিরালা

আজ কান্না থামে না আমার অবর্তমানে

আঁচল উড়িয়ে অনেক পথ ঘুরেছো তুমি অন্তরের বৃষ্টি বিহীন রাতে

ও শুধু তোমার চেনা মাঠ আড়াল থেকে সয়েছি আমি তোমার খুশি চেয়ে

টস টসে চোখের মুক্ত ঝরে বিগত কৃত অপরাধে

বাধাহীন আজ তোমার উৎসব দিনে

আঁচল গুটিয়ে নাও সংযমী বসন্তে.. .

আমি উড়ত উড়তে দেখি তোমার দোলাচল  চিতে নিঃশব্দ দহন…

সারাংশ 

গঙ্গার জলে মন খারাপের গন্ধটা গেলো না

আমার জিভে নোন্তাজলের স্বাদ,ঢোক গিলছি বাধ্যস্বরে

সহজ সুরে মেতে যায় কলরব, মনের কোণে তবু  বিষন্নতা

যে যার ঘরে ফেরে আপন ঘর ভুলে মোহবশে

গঙ্গাবক্ষে  থাকে  উলঙ্গ ছেলে কোলে অসংখ্য মা

ওরা সারাংশ বোঝে কি? সত্য নির্জন সে ঘর

বিসর্জনের পরেও তাই ওদের ঘরে ফেরার তাড়া নেই

ওরাও মিলিত হবে সম্মেলনে, আপন ঘরে…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: