বিস্মৃতির খেয়া // রণেশ রায়

আমার বিস্মৃতির খেয়ায় স্মৃতি উজানে দাঁড় বায়, কত কথা মনে পড়ে চড়াই উৎরাই ধরে। কত কথা…

ঠোঁটে রঙের আলপনা

বিন্যাস  //  তন্মনা চ্যাটার্জী একটা চিরকুট  এলোমেলো সোহাগের সুতোয় বাঁধা তুমুল আবেগের ঘর  বোঝে না আইনকানুন…

গায়ে সোঁদা মাটির গন্ধ মেখে

মেঘবালিকার প্রতি… (জয় গোস্বামী-র লেখা ‘মেঘবালিকার জন্য রূপকথা’ দ্বারা অনুপ্রাণিত) ইন্দ্রানী দলপতি  আজ আরো একটা বিকেল আসুক,…

শব্দেরা লুকিয়ে ঐ শূন্যতায় // মাধব মণ্ডল // ২১ – ৪২

২১ বিদ্যাধরী নদীরে তোর কাছেই যাব আমি গান হয়ে ভেসে যায় আজও সাপে কাটা শরীর। এত…

তোর আঁচল জুড়ে রেখে এলাম

ইতি ভালোবাসা  //  প্রিয়নীল পাল।  . . নির্জন রাস্তা আবেগ ঘুরে বেড়ায় না,  তার মাঝে সাহস…

শব্দেরা লুকিয়ে ঐ শূন্যতায় // মাধব মণ্ডল

১ সবাই নিজের অস্তিত্ব জাহির করে শত্রুরা যখন ঘাড়ের উপর চিন্তায় চিন্তায় ভেঙে যেতে বসে মন…

কত কাছে তবু কত দূরে

গদলাগোদন্  //  শর্মিষ্ঠা গুহ রায় ( মজুমদার ) ধুৎতেরেকি ধ্যাৎতেরি              ইস্ কি বিরক্ত! গদলাগোদন্ রাগলে…

তবু বিশ্বাসের স্পর্শেরা অজুহাত ভুলে থেকে

  উৎপীড়ন // তন্মনা চ্যাটার্জী এলোমেলো জানলায় দুপুর রোদে সিঁধ কাটে ঘুম, দিগন্ত তখন আলসেমী ছোঁয়…

পূর্ণাঙ্গ তিনি // সত্যেন্দ্রনাথ পাইন

 চুলগুলো সব গেছে খসে মাথাটা পুরোই ফাঁকা বিদ্রোহ যাকে কুরে কুরে খায় দ্বন্দ্ব মনে সদাই আঁকা।…

আকুল হৃদয়  রয়েছে তোমার পথের দিকে চেয়ে

 অনুভব // রাজা চৌধুরী  অনুগ্রহ করে আমাকে অভিসম্পাত কর,  অনুগ্রহ করে আমাকে অভিসম্পাত কর,  আমার ওপর…

পেলেও পেতে পারি — আনন্দের আলমারি

বিষয়বস্তু  =  সকলের মাঝে থেকে হারিয়ে না গিয়ে অস্তিত্ব বজায় রাখার কথা ফসিলস  //  সৌরভ আম্বলী…

A few words about the writings

কিছু অনুভূতি কথায় নয় প্রকাশ পায় দুটি মানুষের পারস্পরিক বোঝাপড়ায়।।সেরকমই এক ভাবনা থেকে এই কথোপকথন লেখা।।…

দোপাটির প্যাকেটটা দুবার পড়ে গেল

  স্কুল ড্রেস  //  সায়ক সেনগুপ্ত আলনায় রাখা ঐ জামাটা আর কখনো পড়া হবেনা, সেল্ফে রাখা…

কিছু কথাদের নীরবতা প্রিয় হয়

পরিণতি   //  তন্মনা চ্যাটার্জ্জী অভিমানগুলো জমা থাক শৈশবে, নতুন কিছু অভ্যাসে বসবাস ~ আবার যদি দেখা…

মাঝে মাঝে রাঙা হাঁস সেজে

আমি খুঁজি প্রান তব ওষ্ঠে   //  রনেশ রায় মধুসূদন দত্তের I LOVE`D THEE কবিতার অনুসরণে আমার…

বইগুলো নিজেই নিজেকে পড়ছে

পরিবর্তন  //  সুদীপ ঘোষাল বইগুলো নিজেই নিজেকে পড়ছে ছেলের হাতে মোবাইল ও আর বই পড়তে চায়…

ছায়া ও ব্যথা

সুদীপ ঘোষাল বেঁচে থাকতে মন চিনলি না মাটি এই সখের দেহ একদিন হবে মাটি জনম মরণ…

তপ্ত রৌদ্রে কিংবা গভীর রাত্রে

বৃহস্পতিবার   //  সঞ্জীব ধর আজ বৃহস্পতিবার আমার পুনর্জন্মবার ; আমার সন্তানের মৃত্যুবার। ঊনিশো বায়ান্ন কিংবা একাত্তরে, ফেব্রুয়ারি…

চিনে নিই

রণেশ রায়   তুমি কাছে থেকেও কত দূরে, ঘরের দরজা অবাধ যাতায়াত দুবেলা কোন বাধা নেই…

শব্দহীনতা

  সীমা    চক্রবর্তী   যখন ভাবি লিখবো এক দীর্ঘ কবিতা  তখনই শব্দ জগতে অদ্ভুত এক নিঃসীম…

অথচ আনাড়ি হই ম্লান ইশারায়

 প্রথম দেখা                    সুদীপ ঘোষাল তোমার খোঁপার ফুলের আবেদনে হেরে যাওয়া আমার বসন্ত কত পাঠ নেয়…

কলম খাতা নিয়ে দাঁড়ালাম

সত্যেন্দ্রনাথ পাইন     ৩০ ভাদ্র ১৪২৫. দেখুন এক মৃত রাজকন্যে ওষ্ঠে তার শিল্পীত সূর্যমুখী    না-…

চির শাশ্বত সুরে নিভৃতে গেয়ে চলা

১ বাবা    ফরহাদ হোসেন হাতে ফোসকা ! শরীরের চামড়া রোদে জ্বলে তামাটে । তবুও হাসতে…

দায়ী

সত্যেন্দ্রনাথ পাইন ভাবছো হয়তো এটাই ঠিক ছিলো, যা হয়নি অমুক পুরুষই ছিল ভালো যাকে পাইনি কথায়…

কাল-পুরুষ ও পৃথিবী

  রথীকান্ত সামন্ত পূর্ণপৃথক দৃষ্টিকোণ, আর দেহ ছাড়ার তাড়ায় চোখের আয়নায় মুখ দেখতে ভুলে গেছি আমি যেটুকু…

একটি কবিতা লিখতে চেয়েছিলাম

সঞ্জীব ধর ফেব্রুয়ারি এসেছে,কিন্তু এখনো আসেনি বসন্ত।বসন্তের নির্লাজ সাজে এখনো সাজেনি বাংলা। এখনো চারদিকে কনকনে ঠাণ্ডার…

কবি মধুসূদন দত্তের AN ACROSTIC থেকে  একটি ইংরেজি কবিতার ভাবানুসারে

অনুবাদক : রণেশ রায় বর্ষা শেষে সায়াহ্ন              পৃ : ৪৩২                [ ৩৬ ]                একি শোভা দেখি…

দহন – সুদীপ ঘোষাল

পুড়ে যাওয়ার আগে পুড়েছি নিঃশব্দ নিরালা আজ কান্না থামে না আমার অবর্তমানে আঁচল উড়িয়ে অনেক পথ…

অন্ত্যমিল – – শিঞ্জিতা বর্ম্মণ

গ্রীষ্মের ঝলমলে রোদটা ছোট্ট শিশুটার হাসির মতই নিষ্পাপ, দিচ্ছে উঁকি আম-বউলের ডালের ফাঁক দিয়ে— শৈশবটা যেমন…

সমাধান  –      নাসির ওয়াদেন 

ভালবাসা বিনিময়ে ভালবাসা মেলে, না হারিয়ে যায় কখনও কখনও ইচ্ছার আগুনে ফোটে অনিশ্চয়তার ফুল মুহূর্তের কথা…

তোমার চোখে আছে তো কাজল

কাজল সুমন ঘোষ   তোমার চোখে আছে তো কাজল আমার খুশির কী দরকার… তোমার হাসির ঝলক…

বিচিত্র এ জীবন

রণেশ রায়   দোলাচলে চলন বুঝি না সে  কেমন, বিচিত্র এ জীবন খুঁজে পাই না তল…

কতরকম বার্তা

কত কথা     -রণেশ রায় শোনরে ভাই সত্য বলি, কতরকম বার্তা আসে তারা বিদেশ ঘুরে, খেয়ে…

মায়া

মাধব মন্ডল বলা নেই কওয়া নেই নো এন্ট্রি! বোর্ডে তুমিই তো জ্যান্ত ওহো এখানেই তাহলে !…

মন…. এবার তবে বাড়ি ফেরা যাক

দেবারতি দাশগুপ্তা আজ তোমাকে ছেড়ে যাওয়া যাক, গল্পে না হয় থাকুক খানিক ফাঁক। মন….এবার তবে বাড়ি…

একটু ছায়া পড়ুক বনখেজুরের গায়ে

মাটি  –   মাধব মন্ডল গাছে, ঝোরায়, নুড়িতে কার মায়া লেখা আছে চোখজল ঝরে ঝরে পড়ে একটু…

পাকা ধানে চিহ্ন রেখে গেছে অদৃশ্য মই

শোক সুমন ঘোষ কাল ঝড় থেমে গেছে মাঠে ঘরে রাস্তায় লোক ‘কী বিশাল ঝড়!’ ‘কালবৈশাখী’ ‘অনেক…

ফুলে বসে কুরায় রতি

সূর্য   হাসে   – যাকারিয়া আহমদ লাল টুকটুক সূর্য হাসে পূর্বাকাশে জল ছলছল শিশির হাসে ঘাসে ঘাসে। চাঁদনী…

অশোক – লক্ষ্মীকান্ত মণ্ড ল  

অভ্যাসের কাছে চাঁদ থাকলে দীর্ঘশ্বাস বাড়ে মেঘের গায়ে লেপটে থাকা ধূলোময়লার দখলে অসহ্য গুমোট, আকাশের গায়ের…

এত রক্ত ! – মাধব মন্ডল

দু’হাতে রক্ত এত!! কেউ কি আছো কোথায়ও? বুকের বাঁদিক বরাবর রক্ত ঝোরা . ব্যর্থ পুরুষ তুই…

অলোক আচার্য এবং অজ্ঞাত

ফিনিক্স পাখি    //    অলোক আচার্য তবে তাই হোক আমার বুকের পাঁজর ভস্ম দিয়ে তোমার আহুতি…

লক্ষ্যভ্রষ্ট

 সুদীপ্ত বিশ্বাস  . পথিক আমি, পথের কাছে কথা আমার দেওয়াই আছে ঠিক যেভাবে ছোট্ট নদী ছুটতে-ছুটতে…

তৃতীয় কোজাগরী

শম্পা বিশ্বাস সেবার প্রথম কোজগরী ছিল না ঠিকই কিন্তু জীবনের ভগ্নাংশের প্রথম অধ্যায়টা বােধহয় সেবারই ছাপা…

অবুঝ  চাহিদারা 

অঙ্কিতা ব্যানার্জী ঠোঁট ছুঁয়ে নিক বুকের গভীর ক্ষত চোখের জলের বাড়তে থাকুক ঋণ, আমার যাপন তোমায়…

  সুখ কি তবে বিমূর্ত্ততা !

সুচন্দ্রা হালদার আজকের এই চূড়ান্ত ব্যস্ততার মাঝে আমাদের জীবন থেকে আবেগগুলো কেমন যেন হারিয়ে যেতে বসেছে…..…

অথ রুপ প্রেম বিরহ কথা

সন্দীপ মুখার্জী প্রাক্কথন– যেদিন কলেজবাসে-নির্নিমেষ আঁখিআলিঙ্গন কাজল সমাপ্তিবিন্দু উর্ধ্বমুখ বর্শাফলা তীক্ষ্ম, অপলক তুমি,আমি দিশেহারা স্ট্রাটোস্ফিয়রে হারালাম…

অশনিসংকেত

শান্তনু চট্টোপাধ্যায় ভালােবাসায় এ পৃথিবীকে জয় করা বড়ই কঠিন, দুর্বোধ্য। তােমার অসংযমী জীবনযাপন আমাকে তীরের মতাে…

অলক্ষ‍্যে

কিশলয় মিত্র পথ হাতরে না পেয়ে দিশা ক্লান্ত-অবসন্ন  হয়ে পড়ে, ঢলে পড়ে শিশু। টলতে-টলতে এগিয়ে চলে…

তুমি

আবদুর রাজ্জাক তোমার অসম্ভব আয়োজন আমার আঙুল দুটো ছুঁয়ে দিয়েছে ভেবেছিলাম সুবর্ণরেখার পারে   কখনই যাবো না, সে কথা কথাই থেকে যায়, তুমি তোমার ইগো সম্রাজ্য  ভেঙে সুবর্ণরেখার পারে    কখনই  এলে না। শত্ররূপ শত্রু     থেকেও     বন্ধুত্বের দরজা    বন্ধ করি নি। অবাক হয়েছি   সুবর্ণরেখার জল যেমন ছিলো   তেমনি…

লেখকের নাম – সুব্রত দাস

শহর – কলকাতা  /   দেশ – ইন্ডিয়া কবিতার বিষয়বস্তু – জীবনে প্রথমবার কিছু করার জন্য আমাদের…

শব্দহীন সন্ধ্যায়

আবদুর রাজ্জাক ছায়ারোদ বাউল হয়ে ফিরে আসে অন্ধকারে, ধান শুকানোরোদ এক অদ্ভুত আলো ছড়িয়ে দিয়েছিলো সেদ্ধ ধানে, ছায়াভরা রোদ, অন্ধকারের মৃত্যু দেখতে অভ্যস্ত নয়, তবুও——- অসংখ্য মৃত্যু পেরিয়ে, বাউলের সুর  বেজে ওঠে  পড়ন্তবিকেলে। সূর্যাস্ত বাড়ি ফিরে যায়, মেষ মহিষেরা, ফিরে যায় বাথানে, দুরন্ত কিশোরেরা ফিরে আসে   দূরের থেকে। খেলার মাঠে বালকেরা হৈ চৈ করে আর   পটের সূর্য হাসে একাকি। বাউল ঘর জানে না, গৃহস্তালি জানে না, তার ফেলে আসা দিনগুলি  মৃত্যুর  হাহাকারে  ক্রমশ বেজে ওঠেবাতাসে, কার্তিকের মধ্য জ্যোৎস্নায় থাকে   হিম শিশিরের হেম। সন্ধ্যায় ঘন  অন্ধকারে   সয়লাব হয়ে যায় ——- ঘর, সন্ধ্যাবাতি জ্বালানোর কথা   তার    মনেও থাকে না ।…

আমাকে – উত্তম চৌধুরী

আমাকে ছুঁয়েছে কিশােরীবালার হাত আমাকে ছুঁয়েছে রাতজাগা কালজানি যতদূর জানি একটি দীর্ঘ নদী ও একটি হ্রস্ব…

কবিতা – রণেশ রায়

ঠিকানা আর কি হবে এত ভেবে বললে আমায় পোষ্ট করে দেবে আর একটু বাড়লে তোমার ইচ্ছার…

আলিঙ্গন – অত্রি ভট্টাচার্য

  তােমাকে খুলে বলি আমি আলিঙ্গন চেয়েছিলাম চোরাবাজারে বিকোনাে ঠাকুরদার ঘড়ির মতাে অদ্ভুত আলিঙ্গন। যেইসব অধীত…

যদি হতাম – রণেশ রায়

যদি আমি হতাম তোমার ইয়ে দৌড়ে এসে ধরতে আমায় বাঁধতে শিকল দিয়ে। যদি হতাম তোমার পায়ের…

পূনর্বার – আবদুর রাজ্জাক

একভাবে; নিখিল চরাচর উপেক্ষা কোরে সে বেড়ে উঠেছে, বনস্পতির অধঃ অন্ধকার আর আকাশ রাত্রির এই অশুভ নীল যা কালো বলেই মনে হয়েছিল, তা-ই  শরৎ ভূখণ্ড থেকে ক্রম বিস্তারে; ধীর গতিতে, খানিক ধীর হয়ে হয়ে, নেমে আসে আমাদের বৃক্ষনিবাসে। যারা নদীকূল বেয়ে; গুন টেনে টেনে গিয়েছিল নিরুদ্দেশে, ক্ষণকাল পরে, শিরদাঁড়া কুঞ্চিত কোরে, সার্ধ দেহে; আরো এক   কম্পিত শব্দে,     দুপাশের     অরণ্য কাঁপিয়ে, অনির্ধারিত    শব্দপুঞ্জ ছাপিয়ে       নিদ্রিত   …

যদি  – রণেশ রায়

যদি তোমার সঙ্গে চলি সবাই বলে, চললি কোথা! ওটা যে কানা গলি। . যদি তোমায় কিছু…

বিভাস – অনুপ চট্টোপাধ্যায়

  সেই আমার অবাধ্যতার প্রথম অধ্যায় চোখ থেকে চোখে ভালাে লাগার অশান্ত মৌসুমী সে সুখে বন্দী…

ভিন্ন ভঙ্গি – সমরেশ মণ্ডল

  আমি অন্য ভঙ্গিতে দাঁড়ালাম নিজের দিকে মুখ করে। এতদিন খুব ভুল ভাবে দাঁড়িয়েছিলাম ভুল কোনে…

সময়  – মাধব মন্ডল

রাত        তৈরি অন্ধকার মধ্যরাত         বৈঠকে হোমরাচোমরা শেষরাত    …

প্রস্তুত আমি – রণেশ রায়

. দোলাচলে দুলি আমি ঘরে বসে এক কোনে দিনান্তে এ বেলায়, আলো আঁধার আমায় ঘেরে অনিশ্চয়তার…

সুন্দরবনে রাত্রি – সৈকত পট্টনায়ক

. সেইসব দিন ছিল মধুচুরির গুপ্তবিদ্যা বনবিবির প্রতিটি প্রকোষ্ঠে জ্বণের রহস্য এবং প্রকৃতি বিধান থেকে হত্যা…

ভবিষ্যৎ ডটকম – মনােতােষ আচার্য

পরিচিত বাতাসেরা নগ্ন শরীর পেলে মৌমাছি হয় আমগ্ন বিশ্বাসের রেণু অন্ত্যজ শরীরে সরলবর্গীয় পুরুষের     …

মানুষ জানে না – অমিয়কুমার সেনগুপ্ত

ঝংকারে লাবণ্য বাড়ে। কে কেড়েছে জলের মহিমা! আগুনের চক্রব্যুহ নয়, নয় শিবলিঙ্গে জল দিতে আসা কুমারীর…

জীবন – রণেশ রায়

জীবন, তোমার চলার পথে আদি থেকে অন্তে তুমি এক যৌগিক, তুমি রসায়ন, ভালো মন্দ ঠিক বেঠিকের…

কালুরা – মাধব মন্ডল

রাত নামে আদি গঙ্গায়          বোতল এসেছে সারে সার        …

বুড়োবুড়ির সংসার – রণেশ রায়

এই গোধূলি বেলায় জীবনের সঞ্চিত মেলায় বুড়োবুড়ির  সংসার বিয়ের সন্ধ্যায় মেয়ের বিদায় ছেলে সমুদ্রপার, সময় ধরে…

হেমন্ত এক – ছবি আনসারী

  φ হেমন্ত এক …… গোধুলি সুখের মায়া-জাল কোন অলীক ঘ্রাণের ইন্দ্রজাল ! φ সে এক…